আজ- শনিবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
Email *

শিরোনাম

  বৃক্ষ রোপণের ৭ তারকা ও ১ শিল্পী       ‘পরিবর্তন চাই’ এর চার বছর       নামে কী বা আসে যায়       লৌহজং ‘সামাজিক আন্দোলন’ – আমার সুখ স্মৃতি       `একাত্তরের জননী’র সন্তানেরা       মনোয়ারাঃ সক্ষম সন্তানদের মরতে বসা মা       নদী-খাল উদ্ধারে সফল, সফলতার পথে এবং সম্ভাব্য অভিযান       মাছের পেটের রড থেকে গরাদঘরে       পাবনায় নৌ-র‌্যালিঃ নদী উদ্ধারে নতুন উদ্ভাবন       বন্যার্তদের জন্য দান নয় ঋণ শোধের আয়োজন       আক্রান্ত সিটিজেন জার্নালিজম       দক্ষিণাঞ্চলে দুই সপ্তাহব্যাপী নিম্নচাপঃ উদ্ভাবন ও সিটিজেন জার্নালিজম বিব্রত       আইনজীবীর হৃৎকম্পে কাঁপছে দেশ       পাবলিক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর প্রতিচ্ছবি       জনশক্তিতে উদ্ভাবন       ফেইসবুক, বাংলাদেশ সরকার এবং রাজার ঘণ্টা       অধ্যক্ষ অনিমেষ ও সোশাল মিডিয়া       জনবান্ধব স্বাস্থ্যসেবায় সোশ্যাল মিডিয়া ও প্রথা ভাঙ্গার গল্প       শিয়ালের কামড় থেকে সোশাল মিডিয়ার কামড়       সোশাল মিডিয়া ইনোভেশন এ্যাওয়ার্ডের ১ বছর ১ মাস    

বন্যার্তদের জন্য দান নয় ঋণ শোধের আয়োজন

বাংলাদেশের বন্যার্ত মানুষের জন্য তহবিল সংগ্রহে এগিয়ে এসেছে অস্ট্রেলিয়ার সিডনির বাংলাদেশি কয়েকটি সংগঠন, ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই এ্যাসোসিয়েশন, রাজশাহী ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই এ্যাসোসিয়েশন, প্রতীতি ও বাংলা-সিডনি ডটকম। সংগঠনগুলো ২৭ আগস্ট,  রোববার দুপুর ১২টায় সিডনির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় গ্লেনউড পার্কে সিডনিবাসী বাঙালিদের আমন্ত্রণ জানিয়েছে। বাংলাদেশের নিরিখে চিন্তা করলে ভিন্ন ধারার এই আয়োজনে দুপুরের খাবার খিচুড়ি-মাংসের বিনিময়ে আর্থিক সাহায্য গ্রহণ করা হবে। ১০ জন ২০ জনের পরিমাণ খিচুরি অার ৮ জন ৪ কেজি করে মুরগির মাংস রান্না করে নিয়ে আসবেন। ব্যবস্থা মোটামুটি ২০০ জনের। এ্ই ১৮ জনের বাইরে যারা মধ্যাহ্নভোজে অংশগ্রহন করবেন তাঁরা অর্থ প্রদান করবেন একেবারেই ইচ্ছেমতো। কোনো বাধ্য বাধকতা বা সর্বোচ্চ- সর্বানিম্ন নেই। যারা আসতে পারবেন না তাঁরা অনলাইনে তাঁদের অংশগ্রহন পাঠাতে পারবেন। সবমিলিয়ে স্বতঃস্ফূর্ত একটি আয়োজন।

অায়োজনের আন্তরিকতাটি স্পর্শ করার মতো। এই সাহায্যকে দান নয় বরং ঋণ শোধ বলে মনে করছেন সিডনির অনলাইন বাংলা সাইট বাংলা-সিডনি ডটকমের কর্ণধার আনিসুর রহমান। তিনি বলেন, যে দেশে শৈশব-কৈশোর পার করেছি, যে দেশ আমাদের পরিচয় ও শিক্ষা দিয়েছে, সে

দেশের মানুষের এই দুর্দশার দিনে পাশে দাঁড়ালে দেশের প্রতি ঋণ কিছুটা হলেও কমে। তাই দান নয়, ঋণ শোধ করতে আজ বন্যার্তদের পাশে দাঁড়াতে হবে।

‘‘শুধিতে হইবে ঋণ’’,  “আমরা দান করছি না – পাশে দাঁড়াচ্ছি” এবং ‘‘দান নয় ঋণ শোধের আয়োজন’’ দৃষ্টিভঙ্গীগুলো প্রবাসী বাঙালীদের সম্পর্কে শ্রদ্ধা বাড়িয়ে দেবার মতো। সোশাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে যেভাবে একটি ইভেন্ট অর্গানাইজ করা হয়েছে তা অনুকরণীয়। সংগৃহীত তহবিল বাংলাদেশের সমাজসেবামূলক সংগঠন ‘পরিবর্তন চাই’-এর কর্মীদের মাধ্যমে ত্রাণ সামগ্রী ক্রয় করে বন্যার্তদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে। ‘পরিবর্তন চাই’ ইতোমধ্যে দেশের মধ্যে থেকে সংগৃহিত ৫,৫৪,০০০ টাকা লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ ও হাতীবান্ধা উপজেলার বানভাসী ৪৯৩ জনকে গত ২২ আগষ্ট, ২০১৭ খ্রিষ্টাব্দ তারিখ প্রদান করেছে (লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার শৈলমারী ইউনিয়নের ১, ৪, ৫, ৬, ৯ নং ওয়ার্ডের ১৬৫ জনকে ১,৬৫,০০০ টাকা – হাড়িসর ইউনিয়নের ৫, ৬, ৭ নং ওয়ার্ডের ১১৯ জনকে ১,১৯,০০০ টাকা এবং হাতীবান্ধা উপজেলার গুড্ডিমারী ইউনিয়নের ৬, ৭, ৮, ৯ নং ওয়ার্ডের ২০৯ জনকে ২,৭০,০০০ টাকা প্রদান করা হয়েছে। ‘পরিবর্তন চাই’ এর কর্মীরা এলাকাগুলোতে ঘুরে ঘুরে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা তৈরী করেছিল এবং সংগঠনের চেয়ারম্যান ফিদা হকের উপস্থিতিতে এই কর্মযজ্ঞ সুসম্পন্ন হয়। এলাকাগুলো থেকে বন্যার পানি নেমে যেতে শুরু করেছে, কোথাও কোথাও নেমেও গেছে। বিভিন্ন পরিবারের প্রয়োজন বিভিন্ন। কারো প্রয়োজন খাদ্য, কারো ঔষধ, কারো শস্য বীজ, শুকনা খাবার, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট প্রভৃতি। সার্বিক বিবেচনায় নগদ অর্থ প্রদান করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়)।

সিডনি থেকে প্রাপ্ত তহবিল রাজশাহী জেলার বাগমারা ও নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার বন্যার্তদের মাঝে ঈদের পরপরই বিতরণ করা হবে। সেখানে সিভিল সার্জন, রাজশাহীর মেডিকেল টিম ‘পরিবর্তন চাই’ এর কর্মীদের সাথে কাজ করবে।

বিশ্বাস হচ্ছে ‘বন্যা নয় জিতবে মানবতা’।

 

Categories: ইভেন্ট