আজ- শনিবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
Email *

শিরোনাম

  বৃক্ষ রোপণের ৭ তারকা ও ১ শিল্পী       ‘পরিবর্তন চাই’ এর চার বছর       নামে কী বা আসে যায়       লৌহজং ‘সামাজিক আন্দোলন’ – আমার সুখ স্মৃতি       `একাত্তরের জননী’র সন্তানেরা       মনোয়ারাঃ সক্ষম সন্তানদের মরতে বসা মা       নদী-খাল উদ্ধারে সফল, সফলতার পথে এবং সম্ভাব্য অভিযান       মাছের পেটের রড থেকে গরাদঘরে       পাবনায় নৌ-র‌্যালিঃ নদী উদ্ধারে নতুন উদ্ভাবন       বন্যার্তদের জন্য দান নয় ঋণ শোধের আয়োজন       আক্রান্ত সিটিজেন জার্নালিজম       দক্ষিণাঞ্চলে দুই সপ্তাহব্যাপী নিম্নচাপঃ উদ্ভাবন ও সিটিজেন জার্নালিজম বিব্রত       আইনজীবীর হৃৎকম্পে কাঁপছে দেশ       পাবলিক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর প্রতিচ্ছবি       জনশক্তিতে উদ্ভাবন       ফেইসবুক, বাংলাদেশ সরকার এবং রাজার ঘণ্টা       অধ্যক্ষ অনিমেষ ও সোশাল মিডিয়া       জনবান্ধব স্বাস্থ্যসেবায় সোশ্যাল মিডিয়া ও প্রথা ভাঙ্গার গল্প       শিয়ালের কামড় থেকে সোশাল মিডিয়ার কামড়       সোশাল মিডিয়া ইনোভেশন এ্যাওয়ার্ডের ১ বছর ১ মাস    

পরিচ্ছন্ন জেলখাল থেকে পরিচ্ছন্ন বরিশাল

বাংলা নববর্ষ ১৪২৪ উপলক্ষ্যে বরিশালে শুরু হয়েছে অভিনব পরিচ্ছন্নতা প্রতিযোগিতা। বরিশাল নগরবাসী বাংলা নববর্ষ আগেও উদযাপন করেছে, আগামীতেও করবে কিন্তু এমন পরিচ্ছন্ন বাংলা নববর্ষ এবারই প্রথম। যার মূল রূপকার জনাব গাজী সাইফ, জেলা প্রশাসক, বরিশাল। সৃজনশীল এই জেলা প্রশাসকের জনসম্পৃক্ত কাজগুলোর সাথে বরিশালঃ সমস্যা ও সম্ভাবনা ফেসবুক গ্রুপের সিটিজের জার্নালিস্টবৃন্দ (দীপু হাফিজুর রহমান, প্রতিভা নিটোল, ইব্রাহিম মাসুম, রুমকি, শাহরিয়ার পারভেজ, জাওয়াদ মাহি কার নাম বাদ দিয়ে কার নাম বলবো?) অবধারিতভাবেই থাকেন। আর এই সিটিজেন জার্নালিজমকে উৎসাহিত করে এই পর্যায়ে নিয়ে আসতে এসডিজি বিষয়ক মূখ্য সমন্বয়ক জনাব আবুল কালাম আজাদ ও এটুআই এর ক্যাপাসিটি ডেভেলপমেন্ট স্পেশালিস্ট জনাব মানিক মাহমুদের কথা বিশেষভাবে না বললে ইতিহাস বিকৃতির দায় নিতে হবে।

৩ এপ্রিল পরিকল্পনা গ্রহন করে ৭ এপ্রিল ইভেন্ট ওপেন করা হয়। শুরু হয় প্রচারণা। প্রচারণায় জেলা প্রশাসক মহোদয়কেও দেখা গেছে নিজ হাতে লিফলেট বিতরণ করতে। দেখা গেছে সার্কিট হাউজ ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয় পরিষ্কার করতে। এমনকি গভীর রাতেও বিভিন্ন সংগঠনের সাথে পথে পথে পরিচ্ছন্নতার কাজ করেছেন তিনি। এর ফলে নগরবাসী এমনকি অবুঝ শিশুও কিছু না কিছু করার জন্য জেগে উঠেছে। 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন, আগুন যে আগুন তা বোঝার জন্য বিশেষ প্রজাতির সমালোচক ভাড়া করার দরকার পড়ে না। বাম হাতের কড়ে আঙ্গুলটা একটু ছোঁয়ালেই তা বোঝা যায়। গাজী সাইফের ক্ষেত্রেও কথাটি প্রযোজ্য। আমি অবশ্য বাম হাতের কড়ে আঙ্গুল দিয়ে তাঁকে ছুঁয়ে দেখিনি। ডান হাতে মুসাফাহা করেছি মাত্র।

পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক একটি জাতীয় সংগঠনের সাথে থাকার কারণে খুব কাছে থেকে দেখেছি এ ধরণের উদ্যোগগুলো সাধারণত দিবসভিত্তিক হয়ে থাকে। কিন্তু বরিশালের উদ্যোগটি নির্দিষ্ট একটি দিনের নয় কয়েকদিন ধরে চলমান একটি উদ্যোগ। এ ধরণের উদ্যোগগুলো সাধারণত স্পটভিত্তিক হয়ে থাকে। কিন্তু এখানে পুরো নগরীই স্পট।

যতো দূর জানি জেলখাল পরিচ্ছন্নতা দিয়ে জেলা প্রশাসন, বরিশালের প্রথম বাংলাদেশ বিজয়। এটি ছিল এমন এক উদাহরণ যা বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে যেমন, টাঙ্গাইল, পাবনা, বাগেরহাট, বরগুনায় ছড়িয়ে পড়েছে। ছোটবেলা থেকে শুনেছি স্বাস্থ্য নয় ব্যাধিই সংক্রামক। তাহলে বলতেই হবে বরিশাল ব্যাধিতে আক্রান্ত প্রায় পুরো দেশ।

কিভাবে ঘটছে?
প্রচারণার ক্ষেত্রে অনলাইন অফলাইন সবই ব্যবহার করা হয়েছে। পরিচ্ছন্নতা প্রতিযোগিতার বিষয়টি পত্র, মাইকিং, পোস্টার, লিফলেট, গণমাধ্যম ও ফেসবুকের মাধ্যমে প্রচার করা হয়েছে। পরিচ্ছন্নতার বিষয়টিকে পুরস্কারের আওতায় নিয়ে আসার ফলে পুরো বরিশালে দারুন একটি প্রতিযোগিতার আবহ তৈরী হয়েছে। রাস্তা ও জেল খালসহ সর্বসাধারণের ব্যবহার্য স্থানে ময়লা ফেলে জনদুর্ভোগ সৃষ্টির জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্টও পরিচালিত হয়েছে।

কি ঘটছে?
১। সাগরদী বাজারে ঢাকা ক্লীন বরিশালের পরিচ্ছন্নতা অভিযান চলছে।
২। বরিশাল নগরীর ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠান কাশীপুর হাইস্কুল ও কলেজ নাকি ৯টি কারণে বরিশাল নগরী তথা সারা বাংলাদেশের পরিচ্ছন্নতার মডেল।
৩। শুধু প্রতিযোগিতার জন্য নয় নিজেদের স্বার্থেই পরিচ্ছন্নতার নতুন সাজে শালিণ্য কার্যালয়, ভাটিখানা সাহাপাড়া, ৭ নং ওর্য়াড, বরিশাল।
৪। আনসার ভিডিপি জেলা কার্যালয়, কাশিপুর, বরিশাল এমনিতেই পরিচ্ছন্ন। এখন আরো বেশী।
৫। জেলা সমাজসেবা কার্যালয়, কালিবাড়ী রোডেও চলছে পরিচ্ছন্নতা অভিযান।
৬। সরকারি বিএম কলেজে আজ শুরু হয়েছে পরিছন্নতা অভিযান। ১৩ তারিখ পর্যন্ত চলবে।
৭। বরিশাল মডেল স্কুল ও কলেজ এর শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ পরিচ্ছন্নতা প্রতিযোগিতায় নেমেছেন।
৮। সরকারি বিএম কলেজের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “জয়যাত্রা” পরিচ্ছন্নতা প্রতিযোগিতার অংশ হিসেবে কলেজ ক্যাম্পাসের শহীদ মিনার, বিজয় চত্বর, স্বাধীনতা চত্বর, জিরো পয়েন্ট, জীবনানন্দ দাস মুক্তমঞ্চ, হানিফ উদ্যান ইত্যাদি স্থান পরিষ্কার করেছে।
৯। ঝাড়ু হাতে জেলা প্রশাসক নিজেই সার্কিট হাউজ পরিষ্কারে নেমেছেন।
১০। বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ, পিপীলিকা চ্যারিটি ক্লাব এবং ঢাকা ক্লিন বরিশাল গভীর রাতেও বরিশাল পরিচ্ছন্ন করছেন।
১১। পরিষ্কার বরিশাল গড়তে শিশুরাও নেমে পড়েছে।
১২। মুক্তিযোদ্ধা ও সিটিজেন জার্নালিস্টরা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সংলগ্ন এলাকায় পরিচ্ছন্নতা অভিযানে নেমেছেন।
১৩। বরিশাল কলেক্টরেট স্কুল এর ছাত্র-ছাত্রীরা শিখলো সবাই মিলে কাজ করলে কোনো কাজ বোঝা নয়।
১৪। ফেসবুকের একটি পোস্টে দেখা গেছে বাড়ির ছাদ পরিষ্কার করা হচ্ছে।
১৫। ২ বছরের বাচ্চাকেও ঝাড়ু হাতে দেখা গেছে একটি পোস্টে।
১৬। বিবির পুকুর পরিস্কার করে চুন দেয়া হয়েছে।
১৭। ১৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নিজেই নেমে পড়েছেন পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে।
১৮। গভীর রাতে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ও আশেপাশে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সিটিজেন জার্নালিস্টদের অভিযান।
১৯। ৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রস্তুতি সভা করে কাজে নেমেছেন।
২০। ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর চলমান পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের মাঝেই শুভেচ্ছা সনদ প্রদান করে কর্মীদের উৎসাহিত করছেন।
২১। শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়েও চলছে পরিচ্ছন্নতা অভিযান।
২২। পরিচ্ছন্নতা কর্মী ছাড়াই বিদ্যালয় পরিষ্কার করার কাজ করছে অঙ্কুর শিশু নিকেতন এন্ড হাইস্কুল এর শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

কারা পুরস্কার পাবে?
১। পরিচ্ছন্নতম বাড়ি
২। পরিচ্ছন্নতম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
৩। পরিচ্ছন্নতম চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান
৪। পরিচ্ছন্নতম বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান
৫। পরিচ্ছন্নতম সরকারী প্রতিষ্ঠান
৬। পরিচ্ছন্নতায় সেরা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন
৭। পরিচ্ছন্নতম ওয়ার্ড (সাধারণ)
৮। পরিচ্ছন্নতম ওয়ার্ড (সংরক্ষিত)
৯। পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক প্রচারে সেরা দৈনিক পত্রিকা
১০। পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক প্রচারে সেরা টিভি চ্যানেল
১১। ‘বরিশালঃ সমস্যা ও সম্ভাবনা’ ফেসবুক পেইজে পোস্ট ও মন্তব্য করে সেরা ডিজিটাল সেবাদানকারী (ভুল করে পেইজ বলা হয়েছে, গ্রুপ বললে ঠিক হতো)
১২। পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক প্রচারে সেরা অনলাইন পত্রিকা

কিভাবে পুরস্কার পাওয়া যাবে?
কোনো শ্রেণির পরিচ্ছন্নতা সম্মাননা প্রাপ্তির জন্য ছবি ও তথ্যসহ প্রস্তাব ১৩ এপ্রিল সকাল ৯ টার মধ্যে ফেসবুকে পোস্ট করতে হবে। (‘বরিশালঃ সমস্যা ও সম্ভাবনা’ ফেসবুক গ্রুপে নাকি নিজের প্রোফাইলে বিষয়টি পরিষ্কার হলো না। সম্ভবত ‘বরিশালঃ সমস্যা ও সম্ভাবনা’ ফেসবুক গ্রুপে)। ১৩ এপ্রিল বিচারকমন্ডলী প্রস্তাবিত স্থাপনাসমূহ সরেজমিন পরিদর্শন করে পুরস্কারপ্রাপ্তদের তালিকা চূড়ান্ত করবেন। ১৪ এপ্রিল বিকালে বরিশাল সার্কিট হাউস প্রাঙ্গণের বৈশাখী মঞ্চে সম্মাননা প্রদান করা হবে।

আমি কি ছিদ্রান্বেষণ করছি? যে জাতিগোষ্ঠীতে আমার জন্ম তাদের সবচেয়ে প্রিয় কাজ তো এটিই। পুরো বরিশাল মহানগরী পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন হয়ে যাচ্ছে আর আমি কিনা এটা পরিষ্কার হলো না সেটা পরিষ্কার হলো না করে যাচ্ছি। ইয়ার্কির একটা সীমা থাকা উচিৎ! আর সীমা লংঘন না করে এখানেই লেখা শেষ করে দেই।

নাহ, আর একটি কথা না লিখলেই নয়। বরিশালের জেলা প্রশাসক আর বরিশালের মানুষের বিষয়টি কি? হ্যামিলনের বংশিবাদকের গল্প পড়েছি। বরিশালের বংশিবাদককে দেখেছি। কিন্তু এখন তো মনে হচ্ছে বরিশালই বংশিবাদক।

Categories: ইভেন্ট