আজ- শনিবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
Email *

শিরোনাম

  বৃক্ষ রোপণের ৭ তারকা ও ১ শিল্পী       ‘পরিবর্তন চাই’ এর চার বছর       নামে কী বা আসে যায়       লৌহজং ‘সামাজিক আন্দোলন’ – আমার সুখ স্মৃতি       `একাত্তরের জননী’র সন্তানেরা       মনোয়ারাঃ সক্ষম সন্তানদের মরতে বসা মা       নদী-খাল উদ্ধারে সফল, সফলতার পথে এবং সম্ভাব্য অভিযান       মাছের পেটের রড থেকে গরাদঘরে       পাবনায় নৌ-র‌্যালিঃ নদী উদ্ধারে নতুন উদ্ভাবন       বন্যার্তদের জন্য দান নয় ঋণ শোধের আয়োজন       আক্রান্ত সিটিজেন জার্নালিজম       দক্ষিণাঞ্চলে দুই সপ্তাহব্যাপী নিম্নচাপঃ উদ্ভাবন ও সিটিজেন জার্নালিজম বিব্রত       আইনজীবীর হৃৎকম্পে কাঁপছে দেশ       পাবলিক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর প্রতিচ্ছবি       জনশক্তিতে উদ্ভাবন       ফেইসবুক, বাংলাদেশ সরকার এবং রাজার ঘণ্টা       অধ্যক্ষ অনিমেষ ও সোশাল মিডিয়া       জনবান্ধব স্বাস্থ্যসেবায় সোশ্যাল মিডিয়া ও প্রথা ভাঙ্গার গল্প       শিয়ালের কামড় থেকে সোশাল মিডিয়ার কামড়       সোশাল মিডিয়া ইনোভেশন এ্যাওয়ার্ডের ১ বছর ১ মাস    

কুড়িগ্রাম কর্মসূচিঃ বৈদেশিক কর্মসংস্থানের মাধ্যমে দারিদ্র্য বিমোচন

অনগ্রসর জেলা কুড়িগ্রামের নারী পুরুষ কর্মীদের প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ করে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বৈদেশিক কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে বাংলাদেশের ইউনাইটেড এক্সপোর্ট লিঃ ও সৌদি আরবের বৃহৎ কোম্পানী ফ্যালকন গ্রুপ এর সাথে পিপিপি মডেলে “কুড়িগ্রাম কর্মসূচি” নামে একটি কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। মূল বিষয়টি হলো বৈদেশিক কর্মসংস্থানের মাধ্যমে দারিদ্র্য বিমোচন। পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ এর মাধ্যমে এটি বাস্তবায়িত হবে। মধ্যস্বত্বভোগী দালালদের দৌরাত্ম হ্রাসে এই উদ্ববনের যুগান্তকারী ভূমিকা রাখার সম্ভাবনা আছে। সম্পূর্ণ বিনা খরচে মহিলা গৃহকর্মী সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে প্রেরণের কাজটি এখন ম্যানপাওয়ার রিক্রুটিং এজেন্সিগুলো করছে। একাজে তারা মহিলা গৃহকর্মী সংগ্রহের কাজটি করে দালালদের মাধ্যমে। বিনা খরচে বিদেশে যাবার সুযোগ থাকলেও দালালরা খরচ নিয়েই ছাড়ে। শুধু তাই নয় বেতন ও অন্যান্য সুবিধা বাড়িয়ে বলেও কর্মীদের সাথে প্রতারণা করার অভিযোগ প্রায়ই পাওয়া যায়। বিদেশে যেতে অনেক মহিলাই ভয় পান নিরাপত্তা ও অত্যাচারিত হবার কথা ভেবে। দূর্ঘটনা তো ঘটেই। তবে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের নানাবিধ তৎপরতার কারণে দূর্ঘটনার ঘটনা দিন দিন কমছে। দূর্ঘটনা নির্মূল করার জন্য কুড়িগ্রাম কর্মসূচিতে অভিনব ব্যবস্থা সংযোজন করা হয়েছে। প্রত্যেক মহিলা গৃহকর্মীর একজন পুরুষ আত্মীয়কেও সংশ্লিষ্ট দেশে কর্মী হিসেবে প্রেরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে যা মহিলা গৃহকর্মীদের নিরাপত্তা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা যায়। এই কর্মসূচির নাম কুড়িগ্রাম কর্মসূচি কেন এই প্রশ্ন উঠতে পারে। আসলে মঙ্গা পিড়িত কুড়িগ্রামে প্রথম এই কর্মসূচি উদ্ভেধন করা হয়েছে বলে এরূপ নামকরণ। এর অর্থ এই নয় যে, অন্য জেলার কর্মীরা এই সুবিধার আওতায় আসবে না। পর্যায়ক্রমে সারা দেশেই এটি বাস্তবায়িত হবে। এই উদ্ভাবনের মধ্যে নতুনত্ব হলো দালালদের দৌরাত্ম নির্মূল করার জন্য এখানে স্বনামধন্য স্থানীয় এনজিওগুলোকে যুক্ত করা হয়েছে। প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে কর্মী সংগ্রহের কাজটি এখানে এনজিও করবে। জব ফেয়ারে রিক্রুটিং এজেন্সির পাশাপাশি সৌদি আরব বা সংশ্লিষ্ট দেশের কাউন্টার পার্টও উপস্থিত থাকবে। জেলা প্রশাসন, জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস, টিটিসি, এনজিও, রিক্রুটিং এজেন্সি, সৌদি কাউন্টার পার্ট ফ্যালকন গ্রুপ সবাই মিলে কর্মী বাছাই করবে। কাজেই এটি পিপিপি’র পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ ছাপিয়ে পিপিএফপি (পাবলিক প্রাইভেট ফরেন পার্টনারশিপ) অাদলে আরও বড় কিছু হয়ে উঠার সম্ভাবনা জাগাচ্ছে।

ভিডিও লিংক  https://drive.google.com/file/d/0B797Ee5PN8-7YkZ4aFRscTF3Qkk/view

Categories: উদ্ভাবন