আজ- শনিবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
Email *

শিরোনাম

  বৃক্ষ রোপণের ৭ তারকা ও ১ শিল্পী       ‘পরিবর্তন চাই’ এর চার বছর       নামে কী বা আসে যায়       লৌহজং ‘সামাজিক আন্দোলন’ – আমার সুখ স্মৃতি       `একাত্তরের জননী’র সন্তানেরা       মনোয়ারাঃ সক্ষম সন্তানদের মরতে বসা মা       নদী-খাল উদ্ধারে সফল, সফলতার পথে এবং সম্ভাব্য অভিযান       মাছের পেটের রড থেকে গরাদঘরে       পাবনায় নৌ-র‌্যালিঃ নদী উদ্ধারে নতুন উদ্ভাবন       বন্যার্তদের জন্য দান নয় ঋণ শোধের আয়োজন       আক্রান্ত সিটিজেন জার্নালিজম       দক্ষিণাঞ্চলে দুই সপ্তাহব্যাপী নিম্নচাপঃ উদ্ভাবন ও সিটিজেন জার্নালিজম বিব্রত       আইনজীবীর হৃৎকম্পে কাঁপছে দেশ       পাবলিক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর প্রতিচ্ছবি       জনশক্তিতে উদ্ভাবন       ফেইসবুক, বাংলাদেশ সরকার এবং রাজার ঘণ্টা       অধ্যক্ষ অনিমেষ ও সোশাল মিডিয়া       জনবান্ধব স্বাস্থ্যসেবায় সোশ্যাল মিডিয়া ও প্রথা ভাঙ্গার গল্প       শিয়ালের কামড় থেকে সোশাল মিডিয়ার কামড়       সোশাল মিডিয়া ইনোভেশন এ্যাওয়ার্ডের ১ বছর ১ মাস    

গ্রুপিং কি বেশী হয়ে যাচ্ছে?

ফেসবুকের Public Service Innovation Bangladesh গ্রুপে ইনোভেশন সম্পর্কিত নয় এমন পোস্ট পাওয়া যাচ্ছে কথাটি ঠিক। গ্রুপের এ্যাডমিনরা বিষয়টি নিয়ে ভাবছেনও। এমন সময় ‘বরিশাল – সমস্যা ও সম্ভাবনা’ গ্রুপের কর্ণধার Dc Gazi Saif মহোদয়ের ‘বাংলাদেশ – সমস্যা ও সম্ভাবনা’ গ্রুপের প্রস্তাবটি সুচিন্তিত, সুলিখিত এবং সময়োচিত (https://www.facebook.com/groups/publicserviceinnovationblog/permalink/676475442554346/)। স্থানীয় সমস্যা সমাধানে বিভিন্ন জেলা প্রশাসনের গ্রুপগুলোর জনপ্রিয়তাই আসলে জাতীয় পর্যায়ের সমস্যা উপস্থাপনের একটি গ্রুপকে অনিবার্য করে তুলেছে ।

সেই কাজের কিছুটা Public Service Innovation Bangldesh গ্রুপের মাধ্যমে হয়েও যাচ্ছে। কিন্তু এই গ্রুপের নামের সাথে ইনোভেশন শব্দটি থাকায় ইনোভেশন সম্পর্কিত নয় এমন পোস্টে গ্রুপের বৈশিষ্ট্যহানি হচ্ছে। নাম যদি সমস্যা হয় তাহলে অবশ্য নাম পরিবর্তন করে দিলেই হয়। এই গ্রুপটির নাম বদলে

Public Service Innovation & Implication Bangldesh

Public Service Innovation & Complain Bangldesh

Public Service Innovation & Accountability Bangldesh বা

Public Service Innovation & Grievance, Bangldesh

হলে কি সমাধান হয়ে যাবে? নাকি তখন অগণিত নাগরিক সমস্যা ইনোভেশনের সমস্যাকে আরো বাড়িয়ে তুলবে?

তবে জনাব Saimul Islam Rabby ও Rouf Momen ইতোমধ্যে সৃষ্ট Citizen Journalism Bangladesh গ্রূপের মাধ্যমেই কাজটি করা যেতে পারে বলে যুক্তিসংগত মতামত দিয়েছেন। আমার মনেহয় Citizen Journalism Bangladesh গ্রূপে এখন পর্যন্ত সিটিজেন জার্নালিস্টদের পাশাপাশি সিটিজেন জার্নালিজমে আগ্রহী শুধু এমন সরকারী কর্মকর্তাদের যুক্ত করা হচ্ছে। যদি এই গ্রুপকে @Dc Gazi Saif মহোদয়ের প্রস্তাবিত গ্রুপের আদল দেয়া হয় তাহলে আগ্রহী/অনাগ্রহী সব কর্মকর্তাদের এখানে যুক্ত করতে হবে। আবার Public Service Innovation Bangldesh গ্রুপে সরকারী কর্মকর্তাদের পাশাপাশি কিছু সিটিজেন জার্নালিস্টকেও যুক্ত করা হয়েছে দেখে মনেহয় এটিই তো সেই প্রস্তাবিত গ্রুপ হতে পারে। সেক্ষেত্রে Public Service Innovation Bangldesh নামটি একটু পরিবর্তন করতেই হবে।

এতো কথা বলার কারণ অনেকগুলো গ্রুপ পরিচালনা করা কঠিন। আমরা Public Service Innovation MENTORS’ FORUM এবং Alumni – Innovation Champions in Public Service গ্রুপ দুটোকে সক্রিয় করতে পারিনি। এই দুই সিঁদুরে মেঘ দেখে ঘরপোড়া গরুর মতো ভয় পাওয়াটা তাই অযৌক্তিকও নয়।

জনাব Mahbub Shojib এর শুধু এ্যাডমিন ক্যাডার নয় সকল সরকারী কর্মকর্তাকে যুক্ত করার প্রস্তাবটি বিবেচনার দাবী রাখে। অনেকটা PPP (Public Private Partnership) আদলে এই গ্রুপে @Dc Gazi Saif মহোদয়ের ১০০ জন সিটিজেন জার্নালিস্টকে যুক্ত করার আইডিয়াটি গ্রুপকে নিঃসন্দেহে প্রাণবন্ত করবে। সেক্ষেত্রে আমার মনেহয় সব জেলা থেকে ১ জন করে আর সিটিজেন জার্নালিজমে অগ্রসর ১৬টি জেলা থেকে আরও ১জন করে নিয়ে মোট ৮০ জনের মধ্যে সংখ্যাটি সীমিত রাখলেই চলবে। অগ্রসর জেলা ১৬ এর স্থলে ৩৬ ধরলে অবশ্য ১০০ হয়ে যায়। তাতেও কোনো সমস্যা দেখিনা। কিন্তু সমস্যা হলো গত কয়েক বছর অবিরাম উৎসাহ প্রদানের পরও সম্ভবত সব জেলা প্রশাসন এখনও ফেসবুক পেজ খোলেনি। আর খুললেও কার্যকর পেজ সিকিভাগের বেশী হবে না।

বুঝতে পারছি না কি করা উচিৎ। তবে এটি মনে হচ্ছে গ্রুপিং বেশী হয়ে যাচ্ছে।

Categories: সিটিজেন জার্নালিজম